দুর্নীতিবিরোধী অভিযান: প্রধানমন্ত্রীর কঠোর অবস্থানকে সাধুবাদ

দুর্নীতিবিরোধী অভিযান: প্রধানমন্ত্রীর কঠোর অবস্থানকে সাধুবাদ

single image

দেশে দুর্নীতিবিরোধী অভিযান অব্যাহত থাকবে- এটি স্পষ্ট করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। নিউইয়র্কে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের ৭৪তম অধিবেশন উপলক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেছেন, ‘দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের জন্য দিনরাত অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছি। দুর্নীতির কারণে সেটা নষ্ট হতে দেয়া যায় না।’

এর আগে নিউইয়র্কে এক নাগরিক সংবর্ধনায় তিনি বলেছেন, দুর্নীতিবাজ ও অসৎ ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে তার সরকারের চলমান কঠোর পদক্ষেপ অব্যাহত থাকবে। দুর্নীতিবাজ ও অসৎ ব্যক্তি নিজ দলের হলেও ছাড় নেই। কার আয় কত, কীভাবে জীবনযাপন করে- সেসব খুঁজে বের করা হবে।

প্রধানমন্ত্রীর এসব বক্তব্য দেশের দুর্নীতিবাজদের জন্য একটি হুশিয়ারি ও সতর্কবার্তা। দেশে দুর্নীতি যে ভয়াবহ পর্যায়ে পৌঁছেছে তাতে দুর্নীতির বিরুদ্ধে এমন কঠোর অবস্থান জনপ্রত্যাশার সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণও বটে। তাছাড়া এটি হতে পারে দুর্নীতির বিরুদ্ধে সরকারের জিরো টলারেন্স ঘোষণা বাস্তবায়নের সূচনাও।

আমাদের মনে আছে, টানা তৃতীয় মেয়াদে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের পর প্রথমবারের মতো সচিবালয়ে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করে কিছু নির্দেশনা দিয়েছিলেন। তিনি তখন বলেছিলেন, দারিদ্র্যমুক্ত বাংলাদেশ গড়তে হলে দুর্নীতিমুক্ত প্রশাসন ও সুশাসন খুবই জরুরি।

সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন-ভাতা ও অন্যান্য সুবিধা বাড়ানো হয়েছে, কাজেই এখন দুর্নীতির প্রয়োজন নেই। তিনি নির্দেশ দিয়েছিলেন, দুর্নীতি করলেই সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা নিতে হবে। কিন্তু দুঃখের বিষয়, এরপরও দুর্নীতি কমেনি।

প্রধানমন্ত্রী সম্প্রতি যুবলীগের কর্মকাণ্ডে বিরক্তি প্রকাশ করার পরিপ্রেক্ষিতে বর্তমান ক্যাসিনোবিরোধী অভিযান শুরু হয়েছে। এ অভিযানের মধ্য দিয়ে বেরিয়ে এসেছে, ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের বেশকিছু নেতা-কর্মী এই অবৈধ কর্মকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত।

শুধু তাই নয়, পুলিশসহ প্রশাসনের একাংশও এর সঙ্গে জড়িত বলে অভিযোগ উঠেছে জোরেশোরে। এমনকি সরকারের শীর্ষ পর্যায় থেকেও তোলা হচ্ছে এ ধরনের অভিযোগ। দেশে দুর্নীতি কোন্ পর্যায়ে পৌঁছেছে, এ থেকে তার কিছুটা আঁচ পাওয়া যায়। বস্তুত দুর্নীতি এখন বাংলাদেশের শীর্ষস্থানীয় সমস্যা।

Spread the love

আপনার মতামত লিখুন